বিলুপ্তির পথে স্তন্যপায়ী প্রাণী সোলেনডন: হোরাস আহমেদ

ধরুন আপনি ক্যারিবিয়ান আইল্যান্ড হিস্পানিওলা তে অবকাশ যাপন করতে গেছেন। প্রকৃতি উপভোগ করার জন্য আপনি নির্জন গাছপালা সংলগ্ন বুনো পরিবেশে একা একা হাঁটছেন। হঠাৎ দেখলেন ছুঁচা জাতীয় একটা বড়সড় প্রাণী আপনার পাশ দিয়ে ধীরগতিতে হাঁটতে হাঁটতে যাচ্ছে। এই প্রাণীটির নাম সোলেনডন, হিসপানিওয়ালা সোলেনডন। এটি একটি নিশাচর স্তন্যপায়ী প্রাণী। আপনি যদি আরো কৌতুহলী হন তাহলে খেয়াল করলেও করতে পারেন যে মেয়ে সোলেনডনদের পাছায় নিপল থাকে। এটা দেখার পর আপনার রিয়াকশন হয়তো হবে হোয়াট দ্য … কোন বুরবাক এই ডিজাইন বানিয়েছে?

কিন্তু অবাক হওয়ার এখনো বাকি আছে। এরা সাড়ে সাত কোটি বছর আগে অন্যান্য স্তন্যপায়ী প্রাণীদের শাখা থেকে আলাদা হয়ে গেছে। অর্থাৎ অতিকায় ডাইনোসররা বিলুপ্ত হয়ে গেলেও এই ক্ষুদ্র সোলেনডনরা টিকে গেছে। এটি শেষ স্তন্যপায়ী প্রাণীদের মধ্যে একটি যাদের বিষদাঁত আছে এবং দাঁতে অল্প পরিমাণ বিষ আছে। এরা হাটেও খুব অদ্ভুত ভাবে। পায়ের আঙুলের উপর ভর করে শক্ত হয়ে হেলতে-দুলতে হাটে। যখন দৌড়ায় তখন চেষ্টা করে যাতে কোনোভাবেই হুমরি খেয়ে না পড়ে যায়। দেখলে মনে হয় অনেকটা আঁকাবাঁকা হয়ে দৌড়ানোর চেষ্টা করতেছে। সাড়ে সাত কোটি বছর ধরে কোন সমস্যা না হলেও এখন এরা এখন বিলুপ্ত হওয়ার আশঙ্কায় আছে। হিসপানিওয়ালা দ্বীপে মানুষ আসার আগে এদের কোন সমস্যা না হলেও মানুষের সাথে সাথে কুকুর এবং বেজিরাও এই দ্বীপে আসার ফলে সোলেনডনরা এখনো নিজেদের রক্ষা করার মত বিবর্তনীয় অভিযোজন করতে সক্ষম হয়নি। ফলে খুব শীগই হয়তো এরা বিলুপ্ত হয়ে যেতেও পারে।

ফিরিয়ে দাও সে অরণ্য।

লেখক: হোরাস আহমেদ

ব্লগার

Sharing is caring!

Related Articles

Back to top button