অবৈধভাবে আটকে রাখা প্রাণীদের উদ্ধার করে Save The Nature of Bangladesh

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জের এরশাদের নার্সারির অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে এভাবেই আটকে রাখা হয়েছে বন্যপ্রাণী বানর, অজগর, ঈগল সহ বিভিন্ন পশুপাখি। যাদের দেওয়া হয়না পর্যাপ্ত খাবার, নেওয়া হয়না পরিচর্যা ও সুচিকিৎসা। লোকচক্ষুর অন্তরালে নির্দয় ভাবে এতগুলো বন্যপ্রাণী আটকে রাখা হয়েছিল।
সম্প্রতি আটকে রাখা বাজপাখি, বানর, অজগর, সহ বিভিন্ন পশুপাখি উদ্ধারে আজ সকাল থেকে অভিযান চালায় ময়মনসিংহ বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকতা এ কে এম রুহুল আমিনের নির্দেশে শেরপুর বন বিভাগের A c f  ড. প্রান্তোষ চন্দ্র রায় এর নেতৃত্বে একটি টিম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বন্যপ্রাণী গুলোর সিজার লিষ্ট করে পাঁচ দিনের সময় বেঁধে দিয়ে আসেন এই পাঁচ দিনের মধ্যেই বন্য প্রাণীগুলো নিজ দায়িত্বে বন বিভাগের কর্মকর্তাদের কাছে দ্রুত পৌঁছে দিতে হবে।
এতে অংশ গ্রহণ করেন রাংটিয়া রেন্জের প্রধান ও বালুজুড়ি রেন্জের প্রধান রবিউল ইসলাম বন বিভাগের কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক সহ প্রশাসনের ১০/১২জন কর্মকর্তা এবং Save The Nature Of Bangladesh জামালপুর জেলা শাখার আহ্বায়ক প্রভাষক মোঃ হাছানুজ্জামান সজিব, যুগ্ন আহ্বায়ক উজ্জ্বল মিয়া ও সদস্য ডা: হাবিবুর রহমান, সদস্য নাজমুস সাকিব, মিজান, সাইদুর ও পরিবেশ ক্লাব জামালপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক নিয়ামত উল্লাহ সহ প্রমুখ।
বন্যপ্রাণী উদ্ধারের এই অভিযানকে সফল ও স্বার্থক করার জন্য Save The Nature of Bangladesh কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের চেয়ারম্যান আ.ন.ম. মোয়াজ্জেম হোসেন ও সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম সুমন সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

Sharing is caring!

Related Articles

Back to top button