Monday, 25/5/2020 | : : UTC+6
Green News BD

আসুন, এবার পেঙ্গুইনের কৌশলে বাঁচি

আসুন, এবার পেঙ্গুইনের কৌশলে বাঁচি

পৃথিবীর শীতলতম মহাদেশ অ্যান্টার্কটিকা। শুষ্কতম এই মহাদেশের ৯৮ভাগ এলাকা গড়ে ৬২০০ফুট বরফে আবৃত। তিন ভাগএলাকার গড় তাপমাত্রা৬৩° সেলসিয়াস। মাঝে মাঝে তাপমাত্রা আরও বেশী নেমে যায়। বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় দুশো থেকেতিনশো কিলোমিটার। ঝড় হয় যখন তখন, ভয়াবহ ঝড়। এখানেই পেঙ্গুইনদের বাস। পেঙ্গুইনরা শিখে নিয়েছে তুমুল বৈরীআবহাওয়ায় বাঁচার কৌশল। তারা শিখে নিয়েছে বরফ আচ্ছাদিত মহাদেশে ডিম ফুটানোর বিদ্যা, সন্তানের নিরাপত্তার শিল্প, খাদ্যের অভাবে সম্মিলিতভাবে টিকে থাকার বিজ্ঞান উত্তাপের সাশ্রয়।

পেঙ্গুইনরা বাস করে দলবদ্ধভাবে। তুমুল ঠাণ্ডায় পুরো দলটির সদস্যরা বৃত্তাকারে থাকে। একজনের পাশে আরেকজন ঘেষে।ধীরে ধীরে ঘুরে। ফলে তাপের সাশ্রয় হয়,  শরীরের সঞ্চিত হয় উষ্ণতা। দলের শিশুরা থাকে একেবারে কেন্দ্রে। তাদের ঘিরে থাকেবড় পেঙ্গুইনের দল। মা পেঙ্গুইন ডিম পাড়ে, ওই ডিম নিজ পায়ে রেখে তা দেয় বাবা পেঙ্গুইন। এক মুহুর্তের জন্যও তা বরফেরাখেনা। এসময়টাতে মা নিয়মিত খাবারের সন্ধানে যেতে পারে, কিন্তু বাবা পেঙ্গুইন পারে না। তুমুল ঠাণ্ডায় যেনো জমে না যায়, তাই নিয়মিত শব্দ করে, পায়ে ডিম নিয়ে ধীরে ধীরে চলাফেরা করে। সন্তান জন্মানোর পরই তার ছুটি।

এই করোনাকালের মহামারিতে আসুন পেঙ্গুইনের কৌশলে বাঁচি। পেঙ্গুইনের মত বাঁচার কৌশলটা কেমন? খুব সহজ। পেঙ্গুইনদেরপ্রয়োজন তাপ, এই দু:সময়ে মানুষের প্রয়োজন খাদ্য এবং চিকিৎসা। পেঙ্গুইনরা বৃত্তের কেন্দ্রে রাখে শিশুদের, আমরা কেন্দ্রে রাখিশিশু, বৃদ্ধ এবং নারীদের। সবল পেঙ্গুইনরা বলয়ের সীমানায় দাঁড়িয়ে যেমন ঘিরে রাখে দলের সদস্যদের, আসুন আমরাওএকইভাবে অভাবী মানুষদের ঘিরে থাকি। সামাজিক/নিরাপদ দূরত্ব রক্ষা করেই এভাবে ঘিরে থাকা যায়, করোনার লক ডাউনেচরম সঙ্কটের মুখোমুখি নিম্নমধ্যবিত্ত মধ্যবিত্ত আর হতদরিদ্র মানুষদের জন্য নিশ্চিত করা যায় দুবেলা দুমুঠো মোটা চালেরভাত আর ডাল। রমজানের সামান্য ইফতার। এই রমজানে তুলনামূলকভাবে যারা খারাপ আছেন তাদের পাশে দাঁড়ানোরঅনুরোধ জানাবো না, কারণ সবাই তো সাধ্যমত প্রতি রমজানেই দাঁড়াই। এবার বিনীত অনুরোধ করবোযদি সম্ভব হয়, তবেআসুন একটু বেশী করে দাঁড়াই।

মানবিক দান যাকাত প্রদানের ক্ষেত্রে খুব খারাপ অবস্থায় থাকা প্রতিবেশী এবং আত্মীয় স্বজনদের  অগ্রাধিকার। এটাইনৈতিকতা, এটাই ধর্মের নিয়ম। ইনাদের দিয়ে যদি অবশিষ্ট কিছু থাকে হোক তা মানবিক দান বা যাকাত তা অবিপ্লবে দান করারবিনীত অনুরোধ করছি। কারণ, অবিপ্লব এমন হতদরিদ্র নিম্নমধ্যবিত্তদের নিয়ে কাজ করে যাদের যাওয়ার জায়গা নেই, যাদেরচাওয়ার জায়গা নেই, যাদের কেউ মনে রাখেনা, খোঁজ তো রাখেই না। অবিপ্লবে অংশগ্রহণে আগ্রহী হলে কমেন্টবক্স বা ইনবক্সেজানানোর অনুরোধ রইলো।

উল্লেখ্য, অবিপ্লবের পুরানো বন্ধুরা জানেন যে, অবিপ্লব রমজানে যাকাত এবং মানবিক দানের মাধ্যমে স্বাবলম্বী করার প্রকল্পপরিচালনা করে আসছে। যাকাতে শাড়ি, লুঙ্গি বা পাঞ্জাবী নয়, যাকাত দিয়ে হোক কর্মসংস্থান। যাকাত দিয়েই দূর হোক যাকাতনির্ভরতা। এই ঈদে যে ব্যক্তি যাকাত গ্রহন করছেন আগামী ঈদে সে যেনো নিজেই পরিবারের জন্য মোটা কাপড় কিনতে পারে, অন্তত দুইবেলা মোটা চালের ভাত খেতে পারে। তার পাতেও যেনো এক একটা দিন ওঠে অন্তত কমদামি মাছ, ব্রয়লার মুরগি।এবারও এই প্রকল্প চলমান থাকবে, কারণ করোনা মোকাবিলায় লক ডাউনের কারণে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের অনেকেই পূঁজিহীন নি:স্ব হবার পথে। যারা বারবার যোগাযোগ করছেন। এদিকে দৈনিক আয়ের উপর নির্ভরশীল কর্মহীন দরিদ্রদের অবস্থা আরওবেশী খারাপ।

অবিপ্লব মানে একের সাথে এক যোগ হয়ে দুই নয়, একের পাশে এক দাঁড়িয়ে এগারো। অবিপ্লব মানে সকল হিসেব শেষের মতশুরুতেই মানুষের পাশে মানুষ, মানুষের সাথে মানুষ।

লেখক

আবু সাঈদ আহমেদ

সাংবাদিক

Sharing is caring!

Advisory Editor
Kazi Sanowar Ahmed Lavlu
Editor
Nurul Afsar Mazumder Swapan
Sub-Editor
Barnadet Adhikary 
Dhaka office
38 / D / 3, 1st Floor, dillu Road, Magbazar.
Chittagong Office
Flat: 4 D , 5th Floor, Tower Karnafuly, kazir deori.
Phone: 01713311758

পুরানো খবর

মে 2020
শনি রবি সোম বুধ বৃহ. শু.
« এপ্রিল    
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  

ছবি ঘর

    WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com