Sunday, 5/4/2020 | : : UTC+6
Green News BD

মনোহরদীতে কৃষিজমি দখল করে মাটি বিক্রি

মনোহরদীতে কৃষিজমি দখল করে মাটি বিক্রি

নরসিংদীর মনোহরদীতে জমি বিক্রির মৌখিক সিদ্ধান্তের পর রেজিস্ট্রি ছাড়াই জোর করে তিন বিঘা জমি দখল করে মাটি বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এরপর আদালতসহ বিভিন্ন দপ্তরে ঘুরেও এর বিচার পাচ্ছেন না জমির মালিক অসহায় মফিজ উদ্দিন। উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়নের চরগোহালবাড়িয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মফিজ উদ্দিন চরগোহালবাড়িয়া গ্রামের মৃত মোকসুদ আলীর ছেলে।

অভিযোগে জানা যায়, মফিজ উদ্দিন ৯ মাস আগে মনোহরদী ও কিশোরগঞ্জের কটিয়াদি উপজেলার সীমানা ঘেঁষা চর গলগলিয়া মৌজার আড়িয়াল খাঁ নদের পারের তিন বিঘা জমি ১২ লাখ টাকায় কটিয়াদী উপজেলার চরপুক্ষিয়া গ্রামের সবুজ মিয়ার ছেলে তাপস মৃধার কাছে বিক্রির সিদ্ধান্ত নেন।

অল্প দিনের মধ্যে পুরো টাকা পরিশোধ করে জমি রেজিস্ট্রি করার কথা ছিল। কিন্তু তাপস টাকা দেই-দিচ্ছি বলে সময়ক্ষেপণ করতে থাকেন। দীর্ঘদিন পরও টাকা না দেওয়ায় জমির মালিক অন্যত্র বিক্রির সিদ্ধান্ত নিলে তাতে বাধা দেন তাপস। এরপর তাপস ও তাঁর সহযোগী চরপুক্ষিয়া গ্রামের সোনাম উদ্দিনের ছেলে নূরুল ইসলাম, চরগোহালবাড়িয়া গ্রামের ফালু মিয়ার ছেলে নজরুল ইসলাম, খালিয়াবাইদ গ্রামের রহম আলীর ছেলে আবুল কাশেমকে নিয়ে ওই জমি থেকে মাটি কাটার প্রস্তুতি নেন।

এ সময় মফিজ উদ্দিন তাঁদের বাধা দেন। এতে তাঁরা ক্ষিপ্ত হয়ে মফিজ উদ্দিন ও তাঁর পরিবারের লোকজনকে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মারধর করতে উদ্বুদ্ধ হয়। পরবর্তী সময় সুযোগমতো ওই সম্পত্তি দখলে নেওয়ার হুমকি দেয়।

এ ঘটনায় মফিজ উদ্দিন বাদী হয়ে নরসিংদীর আদালতে মামলা করেন। আদালত আগামী ১৫ মার্চ উভয় পক্ষকে ওই জমিসংক্রান্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেন।

তা ছাড়া আদালতের নির্দেশে মনোহরদী থানার ওসি দুই পক্ষকে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার অনুরোধ করেন।

এসব নির্দেশ অমান্য করে তাপস তাঁর দলবল নিয়ে গত ১০ দিন ধরে দিন-রাত ওই জমি থেকে জোর করে সাত-আট ফুট গভীর করে ট্রাক দিয়ে মাটি কেটে নিচ্ছেন। জোর করে নিজের জমি থেকে মাটি নেওয়ায় বাধা দেন মফিজ উদ্দিন।

এতে তাঁরা ক্ষিপ্ত হয়ে বেশি করে ট্রাক লাগিয়ে মাটি নিয়ে যাচ্ছেন এবং জমির মালিককে হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন।

এ বিষয়ে তাপসের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘যে জমি থেকে আমি মাটি কাটছি—সেটা মফিজ উদ্দিনের নয়, অন্যজনের। তা ছাড়া মফিজ উদ্দিন তিন বিঘা জমি বিক্রির কথা বলে আমার কাছ থেকে আট লাখ টাকা নিয়েছে। কিন্তু জমি রেজিস্ট্রি করে দিচ্ছে না।’

এ ব্যাপারে উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউপি চেয়ারম্যান এমদাদুল হক বলেন, ‘মফিজ উদ্দিনের জমি থেকে মাটি নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি অন্যের মাধ্যমে জানতে পেরে সেখানে স্থানীয় মেম্বারকে পাঠিয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়েছি। জমির মালিক আমার কাছে এলে বিষয়টি সুরাহা করার চেষ্টা করব।’

মনোহরদী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইকবাল হাসান বলেন, ‘বিষয়টি আমার জানা ছিল না। আমি এখনই কৃষ্ণপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন তহসিলদারকে পাঠিয়ে মাটি কাটা বন্ধের ব্যাপারে ব্যবস্থা নিচ্ছি। তা ছাড়া দু-এক দিনের মধ্যে আমি নিজেই সরেজমিনে গিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।’

Sharing is caring!

Advisory Editor
Kazi Sanowar Ahmed Lavlu
Editor
Nurul Afsar Mazumder Swapan
Sub-Editor
Barnadet Adhikary 
Dhaka office
38 / D / 3, 1st Floor, dillu Road, Magbazar.
Chittagong Office
Flat: 4 D , 5th Floor, Tower Karnafuly, kazir deori.
Phone: 01713311758

পুরানো খবর

এপ্রিল 2020
শনি রবি সোম বুধ বৃহ. শু.
« মার্চ    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  

ছবি ঘর

    WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com