ধুলোবালির রাজত্বে মদুনাঘাট থেকে সড়কের কাপ্তাই রাস্তার মাথা পর্যন্ত

চট্টগ্রামের অন্যতম ব্যস্ততম সড়ক কাপ্তাই সড়ক। একদিকে কাপ্তাই সড়কজুড়ে বিশাল বিশাল খানাখন্দক, অন্যদিকে মদুনাঘাট থেকে সড়কের কাপ্তাই রাস্তার মাথা পর্যন্ত পাঁচ কিলোমিটারজুড়ে চলছে ধুলোবালির রাজত্ব! সড়কের নাজুক অবস্থার পাশাপাশি ধুলোবালিতে যাত্রীদের অসহনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হলেও চট্টগ্রাম সড়ক ও জনপথ বিভাগ এবং চট্টগ্রাম ওয়াসা কর্তৃপক্ষ নীরব।

জানা গেছে, কয়েকবছর আগে রাঙ্গুনিয়ার কর্ণফুলী পানি প্রকল্প থেকে চট্টগ্রাম নগরীতে পানি সরবরাহ দিতে পাইপলাইন বসানোর কাজের জন্য প্রথমে কাপ্তাই সড়কের উত্তর পাশের কয়েক ফুট খুঁড়ে ফেলা হয়। সেই পাইপ বসানোর কাজ শেষ হলেও ওই পাশে সংস্কার কাজ ঠিকমতো করা হয়নি। ওই পাশ সংস্কার না করেই অন্য পাশে একবছর আগে শুরু হয় একই প্রকল্পের দ্বিতীয় পাইপলাইন বসানোর কাজ। এ জন্য সড়কের দুপাশই খুঁড়ে ফেলে রাখা হয়েছে। বিশেষ করে মদুনাঘাট থেকে কাপ্তাই রাস্তার মাথা এলাকা পর্যন্ত সড়কের দুপাশে এখন অসংখ্য ছোট বড় গর্ত। সড়কপথের ওই এক কিলোমিটার পার হতে এখন সময় লাগে ২০-১৫ মিনিট। যানজটে আটকা পড়লে সময় আরো বেশি লাগে। তবে সড়কের বেহাল দশার চেয়ে যাত্রীদের বেশি যন্ত্রণা দিচ্ছে ধুলোবালি।

এ প্রসঙ্গে বিশিষ্ট চিকিৎসক ফজল করিম বাবুল বলেন, ‘ধুলোবালির কারণে শিশুদের হাঁপানি, শ্বাসকষ্ট, শ্বাসতন্ত্রের প্রবাহ বন্ধ, শ্বাসতন্ত্রের জটিল রোগ, নিউমোনিয়া, এলার্জি ও চর্মরোগসহ নানা রোগ হতে পারে। বয়স্কদের এলার্জি, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়া এবং শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন রোগ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। ’

Sharing is caring!

Related Articles

Back to top button