Friday, 24/5/2019 | : : UTC+6
Green News BD

তুরাগতীরে উচ্ছেদে বাধা, গ্রেপ্তার ৪

তুরাগতীরে উচ্ছেদে বাধা, গ্রেপ্তার ৪

অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে নদীতীর উদ্ধারে চলমান অভিযানের ৩৪তম দিনে গতকাল রবিবার ঘটেছে অপ্রীতিকর ঘটনা। টঙ্গীতে একটি গার্মেন্ট কারখানার বহুতল ভবন ভাঙতে গিয়ে হামলা ও বাধার মুখে পড়েছেন উচ্ছেদ-সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। এরপর ফাঁকা গুলি ছুড়ে এবং কারখানার পরিচালকসহ চারজনকে গ্রেপ্তারের মধ্য দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেওয়া হয়েছে। প্রায় আধাঘণ্টা বিরতির পর ফের ভাঙা হয়েছে নদীর তীরসংলগ্ন সাততলা ভবনটি।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডাব্লিউটিএ) গতকাল অভিযান চালিয়ে মোট ২৯টি স্থাপনা উচ্ছেদ করে এক একর জায়গা অবমুক্ত করেছে। সকালে গাজীপুরে টঙ্গী মডেল থানাধীন টঙ্গী নদীবন্দর টার্মিনাল থেকে শুরু হয় উচ্ছেদ অভিযান। মাউসাইদ মৌজার রশিদ অটো ব্রিকস পর্যন্ত তুরাগ নদের উভয় তীরে অভিযান চলে।

তুরাগের দুই তীরে অসংখ্য কারখানা ও আবাসিক ভবন। এর মধ্যে অনেক স্থাপনাই নদীতীরের বাইরে। তবে সেগুলো বিশেষ ড্রেন তৈরি করে সরাসরি বর্জ্য ফেলছে তুরাগে। এতে দূষণের পাশাপাশি ভরাট হচ্ছে নদী। কয়েকটি কারখানার সীমানাপ্রাচীরসহ কিছু অংশ নদীতীরের মধ্যে পড়েছে। সেগুলো লাল কালি দিয়ে চিহ্নিত করে আগেই উচ্ছেদের নোটিশ দেওয়া ছিল। বেশির ভাগ স্থাপনার মালিকরা মালামালসহ বসবাসকারীদের সরিয়ে ফেলেছে। স্থানীয় এক বিএনপি নেতার মালিকানাধীন ইটভাটা রয়েছে নদীতীরে। কয়েক দফা নোটিশের পরও তিনি অবৈধ স্থাপনা সরাননি। রশিদ অটো ব্রিকস নামের এই কারখানার কিয়দংশ গতকাল ভাঙা পড়ে।

নদীতীর সংলগ্ন অবৈধ একটি সাততলা ভবন অনন্ত গ্রুপের মালিকানাধীন। সেখানে প্যারাডাইস ওয়াশিং অ্যান্ড ডায়িং নামে একটি কারখানা আছে।

বিআইডাব্লিউটিএর জরিপ অনুযায়ী এই কারখানা ভবন নদী সীমানার ১৫ ফুট ভেতরে। এ অবস্থায় উচ্ছেদ অভিযান চালাতে গেলে গার্মেন্ট শ্রমিকরা নিচে নেমে বিক্ষোভ করতে থাকে। একপর্যায়ে শ্রমিকরা ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে এবং উচ্ছেদে বাধা দেয়। অপ্রীতিকর এ ঘটনা সামাল দিতে ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে ফাঁকা গুলি ছোড়া হয়। এক্সকাভেটরের মাধ্যমে পানি ছিটিয়ে নদীতীর থেকে লোকজন সরিয়ে দেওয়া হয়।

একপর্যায়ে কারখানার পরিচালক পরিচয়ে দুই ব্যক্তি কিছু লোক সঙ্গে নিয়ে বিতণ্ডায় জড়ান ম্যাজিস্ট্রেটসহ অভিযান-সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে। তাঁদের দাবি, কারখানার ওয়ার্কিং স্পেস নদী সীমানার বাইরে। এ অবস্থায় উচ্ছেদ করা যাবে না। কিন্তু তাঁদের দাবির সমর্থনে যথার্থ কাগজপত্র না থাকায় উচ্ছেদ চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন ম্যাজিস্ট্রেট। তখন আবারও তর্কে জড়ালে চারজনকে আটক করা হয়। এরপর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।

বিআইডাব্লিউটিএর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমান এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘অনন্ত গ্রুপের শিল্পপ্রতিষ্ঠান প্যারাডাইস ওয়াশিং অ্যান্ড ডায়িং নদীর সীমানায় পড়েছে। এসংক্রান্ত সব কাগজপত্র পরীক্ষা ও আইনি পদক্ষেপের পরই উচ্ছেদ শুরু হয়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত চারজন উদ্ধত আচরণ করার পাশাপাশি শ্রমিকদের উত্তেজিত করছিলেন। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে তাঁদের আটক করা হয়।’

বুড়িগঙ্গা ও তুরাগ তীরে উচ্ছেদ অভিযান চলাকালে ছোটখাটো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলেও এতটা জটিল পরিস্থিতি তৈরি হয়নি এর আগে। অভিযানের ৩৪তম দিনে বড় ধরনের বাধার ঘটনা ঘটল।

বিআইডাব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচালক এ কে এম আরিফ উদ্দিন বলেন, ‘যেসব স্থাপনার ব্যাপারে আদালতের স্থগিতাদেশ রয়েছে, তা উচ্ছেদের আওতায় আনা হচ্ছে না। সব আইনি পদক্ষেপ সতর্কতার সঙ্গে অনুসরণ করা হচ্ছে। দখলে অভিযুক্ত কারখানাটির ব্যাপারে কোনো স্থগিতাদেশ নেই। তারা পেশিশক্তির মাধ্যমে এবং পরিস্থিতি ঘোলাটে করে উচ্ছেদ থেকে রক্ষা পেতে চেয়েছিল। এ ঘটনায় মামলাসহ কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান, উচ্ছেদ অভিযানকালে গতকাল ভাঙা হয়েছে মোট ২৯টি স্থাপনা। গার্মেন্ট ও কারখানার বর্ধিত অংশ পড়েছে উচ্ছেদে। ভাঙা পড়েছে একটি সাততলা, একটি পাঁচতলা, একটি দোতলা, সাতটি একতলা, ১০টি আধাপাকা ও পাঁচটি টিনশেড ঘর। এ সময় চারটি সীমানা উচ্ছেদ করা হয়। অবমুক্ত করা হয়েছে এক একর তীরভূমি।

Sharing is caring!

Advisory Editor
Kazi Sanowar Ahmed Lavlu
Editor
Nurul Afsar Mazumder Swapan
Sub-Editor
Barnadet Adhikary 
Dhaka office
38 / D / 3, 1st Floor, dillu Road, Magbazar.
Chittagong Office
Flat: 4 D , 5th Floor, Tower Karnafuly, kazir deori.
Phone: 01713311758

পুরানো খবর

মে 2019
শনি রবি সোম বুধ বৃহ. শু.
« এপ্রিল    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031

ছবি ঘর